অন্যান্য

ক্যাডেট কলেজ ভর্তি প্রস্তুতি-১

সাধারণ জ্ঞান
১।     ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি চত্বরের ‘স্বোপার্জিত স্বাধীনতা’ ভাস্কর্যের স্থপতি কে?
উত্তর : শামীম সিকদার।
২।     মিরপুরের ‘শহীদ বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসেৌধ’র স্থপতি কে?
উত্তর : মোস্তফা হারুন কুদ্দুস।
৩।        বাংলাদেশের প্রথম অস্থায়ী প্রধানমন্ত্রী কে?
উত্তর : তাজউদ্দীন আহমদ।
৪।       বাংলাদেশের প্রথম অস্থায়ী সরকার কোথায় গঠিত হয়?
উত্তর : মেহেরপুরে।
৫।     শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস কবে?
উত্তর : ১৪ ডিসেম্বর।
৬।       বাংলাদেশের প্রথম অস্থায়ী রাষ্ট্রপতি কে?
উত্তর : সৈয়দ নজরুল ইসলাম।
৭।     অহিংসা ও অসহযোগ আন্দোলনের জনক কে?
উত্তর : মহাত্মা গান্ধী।
৮।     বাংলাদেশ কখন জাতিসংঘের সদস্যপদ লাভ করে?
উত্তর : ১৯৭৪ সালের ১৭ সেপ্টেম্বর।
৯।     রাজা হর্ষবর্ধনের সময় বাংলাদেশ কতটি জনপদে বিভক্ত ছিল এবং জনপদগুলো কী কী?
উত্তর : পঁাচটি।
ক) বঙ্গ জনপদ : ঢাকা, ময়মনসিংহ, কুমিল্লা, বরিশাল, পটুয়াখালী ও ফরিদপুর জেলা অঞ্চলে গড়ে ওঠা জনপদ।
খ) সমতট : কুমিল্লা ও নোয়াখালী অঞ্চল।
গ) হরিকেল : সিলেট ও চট্টগ্রাম অঞ্চল।
ঘ) গেৌড় : আধুনিক মালদহ, মুর্শিদাবাদ, বীরভূম এবং বর্ধমানের অংশবিশেষ নিয়ে গঠিত গেৌড়।
ঙ) বরেন্দ্র : রংপুর, দিনাজপুর ও রাজশাহী জেলার বাকি অংশ।
১০।    পানিপথের প্রথম যুদ্ধ কখন হয়?
উত্তর : ১৫২৬ সালের ২১ এপ্রিল।
১১। কার সঙ্গে পানিপথের প্রথম যুদ্ধ হয়?
উত্তর : ইব্রাহিম লোদীর সঙ্গে।
১২।    সোনারগঁা থেকে সন্ধিু নদ পর্যন্ত বিস্তৃত সড়কের নাম কী?
উত্তর : গর্্যান্ড ট্রাংক রোড (দৈর্ঘ্য ৪৮৩০ কিলোমিটার)
১৩।    গর্্যান্ড ট্রাংক রোডের নির্মাতা কে?
উত্তর : শের শাহ।
১৪।    টাকায় ৮ মণ চাল পাওয়া যেত কার আমলে?
উত্তর : শায়েস্তা খানের আমলে।
১৫।    নবাব সিরাজদ্দেৌলার প্রকৃত নাম কী?
উত্তর : মির্জা মোহাম্মদ।
১৬।       অর্থনীতিবিদ ম্যালথাসের মতে জনসংখ্যা বাড়ে কোন হারে?
উত্তর : জ্যামিতিক হারে।
১৭।    কত সাল থেকে ইংরেজরা বাংলা শাসন শুরু করে?
উত্তর : ১৭৫৭ সাল থেকে।
১৮।    গম্ভীরা কী?
উত্তর : উত্তরাঞ্চলের (চাঁপাইনবাবগঞ্জ) আঞ্চলিক গান।
১৯।       জনসংখ্যার দিক দিয়ে মুসলিম বিশ্বে বাংলাদেশের স্থান কত?
উত্তর : তৃতীয়।
২০।       জনসংখ্যার দিক থেকে মুসলিম বিশ্বে প্রথম কোন দেশ?
উত্তর : ইন্দোনেশিয়া।
মডেল টেস্টটি তৈরি করেছেন : অধ্যাপক মো. আফলাতুন, প্রতিষ্ঠাতা, প্রচষ্টো ক্যাডেট একাডেমি, আসাদগেট, ঢাকা
সূত্র : কালের কণ্ঠ, পড়ালেখা (৭.১২.২০১৩)

Rate this post

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button

You cannot copy content of this page