৩৬তম বিসিএস : বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে পিএসসি

৩৬তম বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে সরকারি কর্ম কমিশন (পিএসসি)। এবার ২,১৮০টি পদে নিয়োগ দেওয়া হবে বলে জানা গেছে।
৩৬তম বিসিএস পরীক্ষার বিজ্ঞপ্তি পাওয়া যাবে সরকারি কর্ম কমিশনের ওয়েবসাইটে-www.bpsc.gov.bd
আবেদনের সময়সীমা : ১৪ জুন থেকে ২৩ জুলাই পর্যন্ত।
আবেদন ফি : ৭০০ টাকা। তবে প্রতিবন্ধী ও আদিবাসীদের জন্য ১০০ টাকা। [টেলিটকের মাধ্যমে এই টাকা জমা দিতে হবে।]
পদ সংখ্যা :
সাধারণ ক্যাডারে মোট পদ রয়েছে ৫৪২ টি। এর মধ্যে প্রশাসন ক্যাডারে ২৫০ টি, পুলিশ ক্যাডারে ১২০ টি, কর ক্যাডারে ৪৩ টি, তথ্য ক্যাডারে ৩৭ টি, সমবায় ক্যাডারে ২২ টি, পররাষ্ট্র ক্যাডারে ২০ টি, আনসার ক্যাডারে ১৯ টি, নিরীক্ষা ও হিসাব ক্যাডারে ১৫ টি, খাদ্য ক্যাডারে সাতটি, ইকোনমিক ক্যাডারে চারটি, ডাকে দুটি এবং পরিবার পরিকল্পনা ক্যাডারে একটি পদ রয়েছে।
কৃষি ক্যাডারে ৩৯৭টি ও স্বাস্থ্য ক্যাডারে ১৮৭ টিসহ প্রফেশনাল বা কারিগরি ক্যাডারে মোট পদ রয়েছে ৭৪০ টি।
এ ছাড়া বিসিএস সাধারণ শিক্ষায় ৮৭১ টি, সরকারি শিক্ষক প্রশিক্ষণ কলেজের জন্য ২৩টি ও কারিগরি কলেজগুলোর জন্য চারটি পদ রয়েছে।
পরীক্ষা পদ্ধতি :
গতবারের মতো এবারও ২০০ নম্বরেই প্রাথমিক বাছাই পরীক্ষা হবে। পরীক্ষার সময় দুই ঘণ্টা। ২০০ নম্বরের মধ্যে বাংলা ভাষা ও সাহিত্যে ৩৫, ইংরেজি ভাষা ও সাহিত্যে ৩৫, বাংলাদেশ বিষয়াবল‌ীতে ৩০, আন্তর্জাতিক বিষয়াবল‌ীতে ২০, ভূগোল, পরিবেশ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনায় ১০, সাধারণ বিজ্ঞানে ১৫, কম্পিউটার ও তথ্য প্রযুক্তিতে ১৫, গাণিতিক যুক্তিতে ১৫, মানসিক দক্ষতায় ১৫ এবং নৈতিকতা, মূল্যবোধ ও সুশাসনে ১০ নম্বর থাকবে।
লিখিত পরীক্ষা :
প্রাথমিক বাছাই পরীক্ষায় উত্তীর্ণ সাধারণ ক্যাডারের প্রার্থীদের ৯০০ নম্বরের লিখিত পরীক্ষা হবে। এর মধ্যে বাংলায় ২০০, ইংরেজিতে ২০০, বাংলাদেশ বিষয়াবলীতে ২০০, আন্তর্জাতিক বিষয়ে ১০০, গাণিতিক যুক্তি ও মানসিক দক্ষতায় ১০০ এবং সাধারণ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিতে ১০০ নম্বরে পরীক্ষা দিতে হবে। কারিগরি ক্যাডারের জন্য বাংলায় ১০০, ইংরেজিতে ২০০, বাংলাদেশ বিষয়াবলীতে ২০০, গাণিতিক যুক্তিতে ১০০ এবং সংশ্লিষ্ট পদের বিষয়ে ২০০ নম্বরের পরীক্ষা দিতে হবে।
মৌখিক পরীক্ষা :
লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের ২০০ নম্বরের মৌখিক পরীক্ষা হবে।
লিখিত পরীক্ষার ২০০ নম্বরের প্রতিটি বিষয়ের জন্য চার ঘণ্টার এবং ১০০ নম্বরের বিষয়ের জন্য তিন ঘণ্টার পরীক্ষা দিতে হবে। লিখিত পরীক্ষায় ন্যূনতম ৫০ ভাগ নম্বর পেতে হবে। কোনো বিষয়ে ৩০ শতাংশের কম নম্বর পেলে তা ধরা হবে না।

Rate this post

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button

You cannot copy content of this page