তথ্য প্রযুক্তি

ওয়ালটন অ্যাক্সেস কন্ট্রোল ডিভাইস ব্যবহার হচ্ছে সোনালী ব্যাংকে

ওয়ালটন অ্যাক্সেস কন্ট্রোল ডিভাইস ব্যবহার হচ্ছে রাষ্ট্রায়াত্ত ব্যাংক সোনালী ব্যাংকের বিভিন্ন শাখায়। দেশের ১০৮০টি শাখায় ১১৫৫টি অ্যাক্সেস কন্ট্রোল ডিভাইস ইনস্টলেশন শুরু করেছে ওয়ালটন। এ ডিভাইস ব্যবহার করে ব্যাংকটির কর্মীদের অফিস হাজিরাসহ তাদের কর্মঘন্টার হিসাব রাখা এবং ডিজিটাল মাধ্যমে সংরক্ষণ করা হচ্ছে।

 

এ উপলক্ষ্যে গত আগস্ট মাসে উভয় প্রতিষ্ঠানের মধ্যে আনুষ্ঠানিক চুক্তি হয়। চুক্তি অনুযায়ী রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে সোনালী ব্যাংকের শাখা অফিসগুলোতে অ্যাক্সেস কন্ট্রোল ডিভাইস সরবরাহ ও ইনস্টল করে ওয়ালটন।

দেশের বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে অ্যাক্সেস কন্ট্রোল ডিভাইসসহ ওয়ালটনের নানান প্রযুক্তিপণ্য ব্যবহৃত হচ্ছে। এরফলে বৈদেশিক মুদ্রার সাশ্রয়ের পাশাপাশি কর্মসংস্থান বৃদ্ধি এবং দেশীয় প্রযুক্তিপণ্য উৎপাদন শিল্পখাতের বিকাশ তরান্বিত হচ্ছে। এতে দেশের সামগ্রিক অর্থনীতিতে ইতিবাচক প্রভাব পড়ছে। সোনালী ব্যাংকের মতো অন্যান্য সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানগুলো দেশীয় ব্র্যান্ডের পণ্য ব্যবহার করলে তা দেশের সামগ্রিক কল্যাণ বয়ে আনবে বলে অভিমত সংশ্লিষ্টদের।

উল্লেখ্য, দেশের প্রযুক্তি বাজারে উচ্চমানের অ্যাক্সেস কন্ট্রোল ডিভাইস নিয়ে এসেছে ওয়ালটন ডিজি-টেক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড। অ্যাসেন্ট (ASSENT) ব্র্যান্ডের প্যাকেজিংয়ে ওয়ালটনের এই অ্যাক্সেস কন্ট্রোল ডিভাইস নিশ্চিত করে ঝামেলাহীন অফিস অ্যাটেনডেন্স। ফলে যে কোনো প্রতিষ্ঠানের মানবসম্পদ সংক্রান্ত কাজ হয় দ্রুত ও নির্ভুল।

বর্তমানে ওয়ালটনের রয়েছে ৪ মডেলের অ্যাক্সেস কন্ট্রোল ডিভাইস। এর মধ্যে ডব্লিউএসি১১ (WAC11) মডেলের দাম ৭,৯০০ টাকা থেকে কমে বর্তমানে পাওয়া যাচ্ছে ৬,৭১৫ টাকায়। আর ডব্লিউএসি২২ (WAC22) মডেল ১২,৯৫০ টাকা থেকে কমে এখন দাম হয়েছে ১১,০০৭ টাকা এবং ডব্লিউএসি৩৩ (WAC33) মডেল ১৪,৪৫০ টাকা থেকে কমে ১২,২৮২ টাকা। এছাড়া ডব্লিউএসি৩৪ (WAC34) মডেলে নতুন আরেকটি অ্যাক্সেস কন্ট্রোল ডিভাইস বাজারে এসেছে।

ওয়ালটনের অ্যাসেন্ট অ্যাক্সেস কন্ট্রোল ডিভাইসে অত্যাধুনিক সব ফিচার রয়েছে। এতে ফিঙ্গারপ্রিন্ট, কার্ড এবং পাসওয়ার্ড ব্যবহার করা যায়। ডিভাইসগুলো ০.৫ সেকেন্ডেরও কম সময়ে রেসপন্স করে। এতে ৩ হাজার ইউজার এবং ৭০ হাজার পর্যন্ত রেকর্ড ধারণ করার সুবিধা রয়েছে।

ওয়ালটন অ্যাক্সেস কন্ট্রোল ডিভাইসের সঙ্গে এইচআরএমএস সফটওয়্যার, পেরোল, অ্যাটেনডেন্স রিপোর্ট ইত্যাদি ইন্টিগ্রেট করার সুবিধা রয়েছে। এতে আছে এক্সিট বাটন, ডোর ম্যাগনেট, রিডার ইন্টারফেস, উইগ্যান্ড ইনপুট ফিচার। রয়েছে সারা দেশব্যাপী ওয়ালটন সার্ভিস পয়েন্টের মাধ্যমে সবচেয়ে দ্রুততম সময়ে সেবা পাওয়ার নিশ্চয়তা।

অন্য যে কোনো এইচআরএমএস কিংবা ইআরপি সফটওয়্যারের সঙ্গে ইন্ট্রিগেশনের জন্য ওয়ালটন অ্যাক্সেস কন্ট্রোলের এপিআই ব্যবস্থা আছে। এছাড়া যে কোনো প্রতিষ্ঠানে আগে থেকে ব্যবহার করা অ্যাক্সেস কন্ট্রোল ডিভাইসের সাথে সমান্তরালে ওয়ালটন অ্যাক্সেস কন্ট্রোল ডিভাইস ব্যবহার করা যায়।

Rate this post

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button

You cannot copy content of this page